মেসির চুক্তি স্বাক্ষরে ফাইনান্সিয়াল ফেয়ার প্লের নিয়ম ভঙ্গ হয়নি – News Vibe24

মেসির চুক্তি স্বাক্ষরে ফাইনান্সিয়াল ফেয়ার প্লের নিয়ম ভঙ্গ হয়নি - DesheBideshe


অর্থনৈতিক বিধি-নিষেধের কারণে মেসিকে ধরে রাখতে পারেনি বার্সেলোনা। একই রকম বিধি নিষেধের সম্মুখিন হওয়ার সম্ভাবনা ছিল পিএসজিরও। মেসিকে দলে নিতে হলে উয়েফার ফাইনান্সিয়াল ফেয়ার প্লে বিধি লঙ্ঘণ করার মত গুরুতর অপরাধ সংঘটিত হওয়ার সম্ভাবনা ছিল পিএসজির।

এ নিয়ে বার্সেলোনা বোর্ডের তরফ থেকে একজন ইউরোপীয় ইউনিয়রে অ্যাপিলাত ডিভিশনের কাছে অভিযোগও দায়ের করে। কিন্তু সে সবের কোনো কিছুই আটকাতে পারেনি মেসিকে। ঠিকই তিনি যোগ দিলেন পিএসজিতে এবং বাৎসরিক ৩৫ মিলিয়ন ইউরোর পারিশ্রমিকে ফ্রান্সের ক্লাবটিতে যোগ দেন তিনি।

মেসির যোগ দেয়ার পর বিশ্বের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিকের স্পোর্টস ক্লাবে পরিণত হয়েছে পিএসজি। এমনকি আমেরিকান বাস্কেটবল দল …. এর চেয়েও বেশি পারিশ্রমিক দেয়া হচ্ছে পিএসজি ফুটবলারদের।

এমন পরিস্থিতিতে ফাইনান্সিয়াল ফেয়ার প্লের নীতি ভঙ্গ হয়েছে কি না এমন প্রশ্ন তোলা হলে আজ মেসিকে নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে পিএসজি সভাপতি নাসের আল খেলাইফি জানান, মেসিকে স্বাক্ষর করানোর সক্ষমতা তাদের ছিল এবং এতে করে ফাইনান্সিয়াল ফেয়ার প্লের কোনো নিয়ম ভঙ্গ হয়নি।

মেসিকে দলে নেয়ার আগে পিএসজি কিনেছে ইন্টারমিলান থেকে আশরাফ হাকিমিকে, ৬০ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে। একই সঙ্গে সার্জিও রামাস, জিওর্জিনিও উইজনালডাম এবং জিয়ানলুইজি ডোনারুমাকে দলে নেয় পিএসজি। একই সঙ্গে নেইমার এবং এমবাপের মত উচ্চমাত্রার পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত ফুটবলার রয়েছে পিএসজিতে।

এতকিছুর পর মেসিকে আইন ভঙ্গ না করে কিভাবে দলে নিতে পারবে এটা নিয়ে প্রশ্ন ছিল। এসবের জবাব দিতে গিয়ে পিএসজি প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘অর্থনৈতিক বিষয়াধি নিয়ে আমি একটা বিষয় পরিষ্কার করতে চাই যে, আমরা ফাইনান্সিয়াল ফেয়ার প্লের নিয়ম-নীতিগুলো জানি এবং আমরা সব সময়ই এটা অনুসরণ করার চেষ্টা করি।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা কোনো কিছু করার আগে অবশ্যই আমাদের কমার্সিয়াল, ফাইনান্সিয়াল এবং আইনী সহায়তা দেয়া ব্যক্তিদের সঙ্গে আলোচনা করি। তাদেরকে দায়িত্ব দিই এর উপর্যুক্ততা বের করার জন্য। মেসিকে দলে নেয়ার সক্ষমতা আমাদের ছিল। লিওকে আমরা পেরেছি বলেই স্বাক্ষর করিয়েছি। নাহলে আমরা এ বিষয় নিয়ে চিন্তাই করতাম না।’

মেসির প্রশংসা করে তিনি বলেন, ‘মেসি কী নিয়ে এসেছেন ক্লাবে, তা কল্পনাও করা যাবে না। শুধুমাত্র স্টেডিয়ামের বাইরের অবস্থাটা দেখুন। এটা অনেক অনেক বড় একটি পাওয়া। লিও হচ্ছেন আমাদের ক্লাবের অনেক বড় একটি সম্পদ।’

সূত্র : জাগো নিউজ
এম এউ, ১১ আগস্ট

(function(d, s, id){
var js, fjs = d.getElementsByTagName(s)[0];
if (d.getElementById(id)) return;
js = d.createElement(s); js.id = id;
js.src = “https://connect.facebook.net/bn_BD/sdk.js#xfbml=1&version=v3.2”;
fjs.parentNode.insertBefore(js, fjs);
}(document, ‘script’, ‘facebook-jssdk’));

Newsvibe24 Source