ফেদেরার-নাদালের পথে হাঁটলেন সেরেনা – News Vibe24

ফেদেরার-নাদালের পথে হাঁটলেন সেরেনা - DesheBideshe


টেনিসের তিন কিংবদন্তি নেই এবারের ইউএস ওপেনে। রজার ফেদেরার ও রাফায়েল নাদালের পর ফ্ল্যাশিং মিডোসের হার্ডকোর্টে লড়াই না করার ঘোষণা দিলেন সেরেনা উইলিয়ামস। হ্যামস্ট্রিং ছিড়ে যাওয়ায় সোমবার শুরু হতে যাওয়া বছরের শেষ গ্র্যান্ড স্লাম থেকে সরে দাঁড়ালেন আমেরিকান টেনিস তারকা।

গত জুনের শেষ দিকে উইম্বলডনে প্রথম রাউন্ডের ম্যাচে শুরুর সেটে ডান পায়ে চোট পেয়ে ম্যাচ বয়কট করেন সেরেনা। তারপর থেকে আর কোর্টে দেখা যায়নি তাকে। আগামী সপ্তাহে ৪০ বছর পূর্ণ করতে যাওয়া সেরেনা সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে ইউএস ওপেনে না খেলার সিদ্ধান্ত জানান। ফেদেরার ও নাদালের পর তার প্রতিযোগিতা থেকে নাম কেটে নেওয়ায় প্রশ্ন উঠছে, তাদের ছাড়া টেনিসের ভবিষ্যৎ কেমন হবে দেখতে?

১৯৯৭ সালের পর প্রথমবার কোনো মেজর টুর্নামেন্টে সেরেনা, ফেদেরার কিংবা নাদালের কেউই নেই। ১৯৯৮ সালে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে গ্র্যান্ড স্লাম অভিষেক হয় সেরেনার, পরের বছর ফেদেরারের, আর নাদালের ২০০৩ সালে।

২৩ বারের গ্র্যান্ড স্লাম জয়ী সেরেনা বুধবার এক পোস্টে জানান, ‘খুব সতর্ক চিন্তাভাবনার পর এবং আমার চিকিৎসক ও মেডিকেল টিমের পরামর্শ মেনে আমি ইউএস ওপেন থেকে নাম প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছি, যাতে হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট পুরোপুরি সেরে ওঠে।’ সবশেষে তিনি লিখেছেন, ‘খুব শিগগিরই আপনাদের সঙ্গে দেখা হবে।’

সেরেনা ইউএস ওপেনে একক শিরোপা জিতেছেন ছয়বার, সবশেষ ২০১৪ সালে। তারপর থেকে নিউ ইয়র্কের এই হার্ডকোর্টে পাঁচবার খেলে ফাইনালে ওঠেন দুইবার- ২০১৮ সালে নাওমি ওসাকা ও ২০১৯ সালে বিয়াঙ্কা আন্দ্রেসকুর কাছে হেরে যান। অন্য তিনবার খেলেন সেমিফাইনাল। এই বছর আমেরিকান তারকা অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে খেলেন সেমিফাইনাল, হেরে যান পরে চ্যাম্পিয়ন হওয়া ওসাকার কাছে। ফ্রেঞ্চ ওপেনে চতুর্থ রাউন্ডেই তাকে বিদায় করেন এলেনা রিবাকিনা। উইম্বলডনে তো এক সেট খেলেই সরে দাঁড়াতে হলো।

সূত্র : রাইজিংবিডি
এন এইচ, ২৬ আগস্ট

(function(d, s, id){
var js, fjs = d.getElementsByTagName(s)[0];
if (d.getElementById(id)) return;
js = d.createElement(s); js.id = id;
js.src = “https://connect.facebook.net/bn_BD/sdk.js#xfbml=1&version=v3.2”;
fjs.parentNode.insertBefore(js, fjs);
}(document, ‘script’, ‘facebook-jssdk’));