দিনাজপুরে এক গ্রামেই ১৭ প্রার্থী! – News Vibe24

দিনাজপুরে এক গ্রামেই ১৭ প্রার্থী! - DesheBideshe

দিনাজপুর, ২৪ নভেম্বর – দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী ২নং কাটলা ইউনিয়নের দাউদপুর গ্রাম। গ্রামটি দুটি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত। ওই গ্রামে আসন্ন তৃতীয় দফা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ২, সংরক্ষিত নারী আসনে ৩ ও সাধারণ ইউপি সদস্য পদে ১২ জন প্রার্থী বিভিন্ন প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এরমধ্যে এক ওয়ার্ডেই চাচা-ভাতিজার পাশাপাশি দুই ভাইবোন ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। উপজেলা নির্বাচন কার্যালয়ের তথ্যানুযায়ী বিষয়গুলো জানা গেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আগামী ২৮ নভেম্বর ইউপি নির্বাচনকে সামনে রেখে ওয়ার্ডের দাউদপুর গ্রামের চন্ডিপুর থেকে চেয়ারম্যান পদে বর্তমান চেয়ারম্যান মো. নাজির হোসেন (আনারস) ও তারই ভাতিজা আলহাজ্ব মো. মনসুর আলী (ঘোড়া) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। চন্ডিপুর থেকে ইউপি সদস্য পদে এনামুল হক (বৈদ্যুতিক পাখা) ও তার আপন ছোটবোন সংরক্ষিত আসনে বর্তমান ইউপি সদস্য মোছা. ফাহিমা (সূর্যমুখী ফুল) নির্বাচন করছেন। এছাড়া ৭নং ওয়ার্ড থেকে রওশনারা বিবি (হেলিকপ্টার) ও ৮নং ওয়ার্ড থেকে সংরক্ষিত নারী আসনের ইউপি সদস্য পদে রোজিনা খাতুন (বক প্রতীক) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

৮নং ওয়ার্ডে ইউপি সদস্য পদে সাবেক ইউপি সদস্য শহিদুল ইসলাম (তালা), মো. কামরুজ্জামান (আপেল), জিয়ারুল রহমান (ভ্যানগাড়ি), গ্রামের সীমান্তঘেঁষা একটি পাড়া (জোলাপাড়া) থেকে সাবেক ইউপি সদস্য আফিজ উদ্দিন (ফুটবল) ও তারই ভাতিজা বর্তমান ইউপি সদস্য মইনুল ইসলাম (টিউবওয়েল), আতিয়ার রহমান (মোরগ) ও হবিবর রহমান (ঘুড়ি) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

অপরদিকে ইউপি সদস্য পদে দাউদপুর গ্রামের ৭নং ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য আব্দুর রাজ্জাক (টিউবওয়েল) ও তারই আপন ভাতিজা একরামুল হক (তালা), বকুল হোসেন (ফুটবল) ও রশিদুল ইসলাম (মোরগ) নির্বাচনী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তবে এ নির্বাচনে সকল প্রার্থীই নিজেকে যোগ্য ও বিপুল ভোট পেয়ে বিজয়ী হবেন বলে দাবি করেছেন।

উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় অফিস সূত্রে জানা যায়, ইউনিয়নের দাউদপুর গ্রামে ৭নং ওয়ার্ডে ১ হাজার ৬৪৪ ও ৮নং ওয়ার্ডে ১ হাজার ৬১৭ সহ দুই ওয়ার্ডে মোট ৩ হাজার ২৬১ জন ভোটার রয়েছেন।

এছাড়াও উপজেলার ৭টি ইউনিয়নে ২২ জন চেয়ারম্যান, সাধারণ সদস্য (পুরুষ) ২১৫ জন এবং সংরক্ষীত নারী আসনে ৭২ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। উপজেলায় মোট ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৪ হাজার ৫২২ জন। পুরুষ ভোটার রয়েছেন ৫২ হাজার ৫০৯ জন আর নারী ভোটার রয়েছেন ৫২ হাজার ১৭জন।

সরেজমিনে জানা গেছে, ইউপি নির্বাচনে তিনজন প্রার্থী একই পাড়ার। এক প্রার্থীর বাড়ি থেকে অপর প্রার্থীর বাড়ির দূরত্ব মাত্র পাঁচ হাত। গ্রামের প্রতিটি বাড়ির দরজার সামনের, অলি গলীতে গাছে ঝুলছে প্রতিটি প্রার্থীর পোস্টার।

এক গ্রামেই এত প্রার্থীর বিষয়ে জানতে চাইলে ওই গ্রামের ষাটোর্ধ্ব কমির উদ্দিন মুচকি হেসে বলেন, হা রে বাপু, এক গ্রামোততে তোমরা যদি এত্তগুলা প্রার্থী ভোটে দাঁড়ান, তাইলে হামরা কাক থুইয়ে কাক ভোট দিমো?

৮নং ওয়ার্ডের ভোটার মো. জামাল উদ্দিন (৬৫) বলেন, আগামী ইউপি নির্বাচনে দাউদপুর গ্রামের একই পাড়া থেকে একই পদে একাধিক প্রার্থী নির্বাচন করছেন। প্রার্থীরা অধিকাংশ ভোটারের প্রতিবেশী ও আত্মীয় হওয়ায় পছন্দমতো প্রার্থী নির্বাচনে আমরা ভোটাররা অনেকটাই বিপাকে পড়েছি। তবে এলাকার উন্নয়নের জন্য আমরা যোগ্য প্রার্থীকেই ভোট দেব।

নির্বাচনে জেতার প্রত্যাশার কথা বলতে গিয়ে চেয়ারম্যান প্রার্থী আলহাজ্ব মনসুর আলী বলেন, আমি সীমান্ত এলাকার মানুষ। সীমান্তের অধিকাংশ মানুষ কারণে-অকারণে প্রায় সময়ে অনেক সমস্যায় পড়েন। এছাড়া এলাকার সাধারণ মানুষ সরকারি সুযোগ-সুবিধা থেকে প্রায়ই বঞ্চিত থাকেন। এলাকার দরিদ্র ও অসহায় মানুষের ন্যায্য অধিকার আদায় ও আপদে-বিপদে তাদের পাশে দাঁড়াতেই নির্বাচনে অংশ নিয়েছি। ভোট প্রার্থনায় ভোটারদের বাড়ি বাড়ি যাচ্ছি। ভোটারদের ব্যাপক সাড়া রয়েছে।

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ২৪ নভেম্বর

(function(d, s, id){
var js, fjs = d.getElementsByTagName(s)[0];
if (d.getElementById(id)) return;
js = d.createElement(s); js.id = id;
js.src = “https://connect.facebook.net/bn_BD/sdk.js#xfbml=1&version=v3.2”;
fjs.parentNode.insertBefore(js, fjs);
}(document, ‘script’, ‘facebook-jssdk’));