জয় দিয়ে বিশ্বকাপ শেষ করলো ভারত – News Vibe24

DesheBideshe

দুবাই, ০৯ নভেম্বর – গতকালই আফগানিস্তানকে নিউজিল্যান্ড হারিয়ে দেয়ায় শেষ চারের সম্ভাবনা শেষ হয়ে যায়। সেদিক থেকে ভারত-নামিবিয়ার ম্যাচ স্রেফ নিয়মরক্ষার। তবে কোচ রবি শাস্ত্রি ও অধিনায়ক বিরাট কোহলি যুগের শেষটা রাঙিয়ে রাখতে মুখিয়ে ছিল ভারত। নামিবিয়ার বিপক্ষে সেটা অনায়াসেই করল তারা। রবীন্দ্র জাদেজা ও রবিচন্দ্রন অশ্বিনের দারুণ বোলিংয়ের পর রোহিত শর্মা ও লোকেশ রাহুলের ব্যাটে সুপার টুয়েলভের শেষ ম্যাচে ৯ উইকেটে জিতেছে ভারত। নামিবিয়ার ১৩২ রান তারা ছাড়িয়ে গেছে ২৮ বল বাকি থাকতে।

দুবাই ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে সোমবার সুপার টুয়েলভের শেষ ম্যাচটি ভারতের কোচ হিসেবে রবি শাস্ত্রি এবং টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক হিসেবে কোহলির এটাই ছিল শেষ ম্যাচ।

ম্যাচের শুরুতে টস জিতে নামিবিয়াকে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানান ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ব্যাট হাতে শুরুটা ভালই ছিল নামিবিয়ার। কিন্তু বেশিক্ষণ ক্রিজে অবস্থান করা হয়নি ওপেনার মিচেল ভ্যান লিনগ্যানের। আউট হয়েছেন ব্যক্তিগত ১৫ রানে। পরের উইকেটে খেলতে নেমে রানের দেখাই পাননি ক্রেইগ উইলিয়াম। আর আরেক ওপেনার স্টিফেন বার্ড আউট হন ২১ রানে।

ভালো শুরুর পরও দ্রুত উইকেট হারিয়ে বেশ চাপেই পড়ে নামিবিয়া। এরপর সময় গড়িয়েছে আর একের পর এক উইকেটের পতন ঘটেছে। ১২ রানে ফেরেন দলীয় অধিনায়ক জেরার্দ ইরাসমাস। এছাড়া ৫ রান করতে পেরেছেন লফটি ইয়াটন।

এদিকে ব্যাট হাতে খুঁটি গেড়ে খেলতে থেকে দলীয় স্কোরটা কিছুটা বড় করার চেষ্টা চালিয়ে যান অলরাউন্ডার ডেভিড ওয়াইস। আউট হওয়ার পূর্বে করেছেন নামিবিয়ার পক্ষে সর্বোচ্চ ২৬ রান। এছাড়া ৯ রানে স্মিট এবং শূন্যরানে ফেরেন জানে গ্রিন। আর শেষ পর্যন্ত খেলে গিয়ে ১৫ রানে ফ্রাইলিঙ্ক এবং ১৩ রানে ট্রাম্পলম্যান অপরাজিত থাকে।

ভারতের পক্ষে সর্বোচ্চ তিনটি করে উইকেট নেন রবিন্দ্রো জাদেজা এবং রবিচন্দ্রন অশ্বিন। এছাড়া দুটি উইকেট পেয়েছেন জাস্প্রিত বুমরাহ।

ছোট রান তাড়া করতে নেমে কোনো চাপই নেয়নি ভারত। ওপেনিং জুটিতে রোহিত শর্মা এবং লোকেশ রাহুল মিলে মাত্র ৫৯ বলে তুলেন ৮৬ রান। এর মধ্যেই অর্ধশতক পূর্ণ করে ফেলেন রোহিত। ফ্রাইলিঙ্কের বলে আউট হওয়ার আগে মাত্র ৩৭ বল খেলে করেন ৫৬ রান। তার ইনিংসটি ৭টি চার এবং ২টি ছয়ে সাজানো।

এরপর দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে সূর্যকুমার যাদবকে সঙ্গে নিয়ে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান আরেক ওপেনার লোকেশ রাহুল। এ সময় দুজন মিলে অপ্রতিরোধ্য ৫০ রানের জুটি গড়েন। এদিকে রোহিতের পর হাফসেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন রাহুলও। ৩৬ বলে ৫৪ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি। আর সূর্যকুমার অপরাজিত থাকেন ২৫ রানে।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ০৯ নভেম্বর

(function(d, s, id){
var js, fjs = d.getElementsByTagName(s)[0];
if (d.getElementById(id)) return;
js = d.createElement(s); js.id = id;
js.src = “https://connect.facebook.net/bn_BD/sdk.js#xfbml=1&version=v3.2”;
fjs.parentNode.insertBefore(js, fjs);
}(document, ‘script’, ‘facebook-jssdk’));