চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব বিরোধীদের, হট্টোগোলে রাজ্যসভার ৪০ ঘণ্টা নষ্ট – News Vibe24

চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব বিরোধীদের, হট্টোগোলে রাজ্যসভার ৪০ ঘণ্টা নষ্ট - DesheBideshe

কলকাতা, ৩১ জুলাই – বাদল অধিবেশনের শুরু থেকেই উত্তাল রাজ্যসভা। পেগাসাস ইস্যুতে দফায় দফায় উত্তাল হয়েছে অধিবেশন। সূত্রের খবর এবার রাজ্যসভার চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনতে চলেছে বিরোধীরা। ইতিমধ্যেই বিরোধীদের হইহট্টোগোলে রাজ্যসভার ৪০ ঘণ্টা নষ্ট হয়ে গিয়েছে। অর্থাৎ ২ সপ্তাহে ৫০ ঘণ্টা কর্মসময়ের মধ্যে ৪০ ঘণ্টা নষ্ট হয়ে গিয়েছে বিরোধীদের বিক্ষোভে। যা নজিরবিহীন বলে মনে করা হচ্ছে।

উত্তাল রাজ্যসভা

বাদল অধিবেশনের প্রথম থেকেই নজিরবিহীন ভাবে উত্তাল হয়ে উঠেছে সংসদের উচ্চ কক্ষ। পেগাসাস ইস্যুতে বিরোধীদের সম্মিলিত বিক্ষোভে নাজেহাল শাসক শিবির। পরিস্থিতি সামাল দিতে দফায় দফায় মুলতুবি করে িদতে হয়েছে অধিবেশন। পেগাসাস ইস্যুতে সরকারেরর জবাব দিহির দাবিতে ওয়েলে নেমে প্রবল বিক্ষোভ দেখিয়েছেন বিরোধীরা। কংগ্রেস, তৃণমূল কংগ্রেস, ডিএমকে, সমাজবাদী পার্টি সকলেই বিক্ষোভ দেখিয়েছেন রাজ্যসভায়। চেয়ার ম্যান ডেপুটি চেয়ারম্যান কারোর কথাই তাঁরা শোনেননি। অধিবেশন মুলতুবি করে দেওয়া ছাড়া কোনও উপায় ছিল না তাঁদের কাছে।২ সপ্তাহের বাদল অধিবেশনে রাজ্য সভায় একটি বিষয় নিয়েও আলোচনা হয়নি।

অনাস্থা প্রস্তাব আনার প্রস্তুতি

শোনা যাচ্ছে বিরোধীদের একজোট করে রাজ্যসভার চেয়ারম্যান ভেঙ্কাইয়া নাইডুর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনার পরিকল্পনায় রয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। তাঁদের অভিযোগ গত ১৯ জুলাই থেকে শুরু হয়েছে সংসদের বাদল অধিবেশন। তার মধ্যে পেগাসাসা, ভ্যাকসিন সহ একাধিক ইস্যুতে আলোচনার জন্য কেন্দ্রকে নোটিস দিয়েছেন তাঁরা। কিন্তু মোদী সরকার কোনও বিষয়েই আলোচনার প্রয়োজন মনে করছে না। তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ ডেরেক ও ব্রায়েন অভিযোগ করেছেন মোদী সরকার চাইছে না সংসদ অধিবেশন চলুক।

সাসপেন্ড শান্তনু সেন

ইতিমধ্যেই রাজ্যসভায় পেগাসাস ইস্যুতে উত্তাল হয়ে উঠেছিল। আলোচনা চলাকালীন কেন্দ্রীয় তথ্য প্রযুক্তির হাত থেকে কাগজ ছিনিয়ে নিয়ে সেটি ছিঁড়ে ফেলেছিলেন তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ শান্তনু সেন। তারপরেই শাসক দলের সাংসদরা শান্তনু সেনের বিরুদ্ধে সংসদের আইন ভঙ্গের অভিযোগ জানায়। এবং তাঁকে সাসপেন্ড করার দাবি করে। সেই দাবি মেনেই তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ শান্তনু সেনকে বাদল অধিবেশনের জন্য সাসপেন্ড করা হয় রাজ্যসভা থেকে। তার প্রতিবাদে একজোটে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন বিরোধীরা। বিজেপির পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে বিরোধী সংসদ অধিবেশন হতে দিতে চাইছে না সেকারণে এই ধরনের কাজ করছে

৪০ ঘণ্টা নষ্ট

এই প্রথম বাদল অধিবেশনের চলাকালীন সচিবালয়ের পক্ষ থেকে ডেইলি বুলেটিন প্রকাশ করা হচ্ছে। তাতে বলা হয়ে ২সপ্তাহের বাদল অধিবেশনে এতোটাই বিক্ষোভ হয়েছে উচ্চ কক্ষে যে ৫০ ঘণ্টার মধ্যে ৪০ ঘণ্টা নষ্ট হয়েছে। এদিকে অধিবেশন শুরুর আগের রাজ্যসভার চেয়ারম্যান ভেঙ্কাইয়া নাইডু সর্বদল বৈঠকে আবেদন জানিয়েছিলেন উচ্চ কক্ষে একাধিক বিল নিয়ে আলোচনা করতে যেন সহযোগিতা করেন সব রাজনৈতিক দলের সাংসদরা।

তথ্যসূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া বেঙ্গলি
এস সি/ ৩১ জুলাই

(function(d, s, id){
var js, fjs = d.getElementsByTagName(s)[0];
if (d.getElementById(id)) return;
js = d.createElement(s); js.id = id;
js.src = “https://connect.facebook.net/bn_BD/sdk.js#xfbml=1&version=v3.2”;
fjs.parentNode.insertBefore(js, fjs);
}(document, ‘script’, ‘facebook-jssdk’));

Newsvibe24 Source