উত্তরবঙ্গেও দেবাঞ্জন-জাল! সাংস্কৃতিক শিল্পীর থেকে ৩ লক্ষ হাতানোর অভিযোগ – News Vibe24

উত্তরবঙ্গেও দেবাঞ্জন-জাল! সাংস্কৃতিক শিল্পীর থেকে ৩ লক্ষ হাতানোর অভিযোগ - DesheBideshe

কলকাতা, ০৩ জুলাই – ভুয়ো আইএএস দেবাঞ্জন দেব (Fake IAS Debanjab Deb)-এর চক্রে প্রতারিত উত্তরবঙ্গের সাংস্কৃতিক শিল্পী প্রতারিত। দিয়েছিলেন তিন লক্ষ টাকা। তাঁকে পদ পাইয়ে দেওয়া হবে বলে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল।

উত্তরবঙ্গের টি বোর্ড মনিটরিং কমিটির চেয়ারম্যান করা হবে। এই আশ্বাসে প্রতারিত শিলিগুড়ির সাংস্কৃতিক শিল্পী তথা গায়ক সৌভিক মজুমদার। জাল ভ্যাকসিন-কাণ্ডের ‘নায়ক’ ভুয়ো আইএএস দেবাঞ্জন দেব (Fake IAS Debanjab Deb)-এর প্রতারণা চক্রর তদন্তে নতুন তথ্য উঠে এল প্রকাশ্যে।

জানা গিয়েছে, তাকে উত্তরবঙ্গের চা-বাগানের টি বোর্ড বা মনিটরিং কমিটির চেয়ারম্যান করা হবে বলে আশ্বাস দেওয়া হয়েছিল। আর তার নামে প্রায় তিন লক্ষ টাকা প্রতারণা করেছে অভিযুক্ত ভুয়ো আইএএস দেবাঞ্জন দেব (Fake IAS Debanjab Deb)। এমনকি তার আসল পরিচয় প্রকাশ্যে আসতেই প্রাণে মারার হুমকি দেওয়া হয়েছিল বলে অভিযোগ উঠেছে।

রাজ্যে জাল ভ্যাকসিন-কাণ্ড নিয়ে তোলপাড় হওয়ার পরই ঘটনায় মূল অভিযুক্ত ভুয়ো আইএএস দেবাঞ্জন দেব (Fake IAS Debanjab Deb)-কে গ্রেপ্তারের পরে তদন্তে উঠে আসে একের পর এক ঘটনা। এবার এই ঘটনায় তদন্তে শিলিগুড়ির এক সঙ্গীতশিল্পীকে প্রতারণার অভিযোগ উঠল দেবাঞ্জনের বিরুদ্ধে।

শিলিগুড়ি পুরসভার ৩৯ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা গায়ক সৌভিক মজুমদার। ২০১৮ সালে শিলিগুড়িতে এসেছিল দেবাঞ্জন দেব। জানা গিয়েছে, নিজেকে রাজ্য তথ্য ও সংস্কৃতি এবং কর্মিবর্গ প্রশাসনিক সংস্কার দফতরের যুগ্ম-সচিব হিসেবে পরিচয় দিয়েছিল ভুয়ো আইএএস দেবাঞ্জন দেব (Fake IAS Debanjab Deb)।

এমনকি শিলিগুড়িতে মৈনাক ট্যুরিস্ট লজের মতো সরকারি আবাসনে উঠেছিল ভুয়ো আইএএস দেবাঞ্জন দেব (Fake IAS Debanjab Deb)। শিলিগুড়িতে মৈনাক ট্যুরিস্ট লজ-সহ পাহাড়ে একাধিক জায়গায় বৈঠক করেছিল। বিভিন্ন ঠিকাদারদের জিটিএ-র কাজ পাইয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিল অভিযুক্ত।

আরও জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত দেবাঞ্জন ওই সময় শিল্পীকে উত্তরবঙ্গের টি বোর্ড মনিটরিং কমিটির চেয়ারম্যান করা হবে। এই আশ্বাস দিয়ে তিন লক্ষ টাকা নেয়। পরে সৌভিক বিষয়টি জানতে পারেন।

তখন তাঁকে ও তার ছেলেকে প্রাণে মারার হুমকি দেওয়া হয়েছিল বলে অভিযোগ উঠেছে। প্রসঙ্গত, যে সময় শিলিগুড়িতে মৈনাক ট্যুরিস্ট লজের মতো সরকারি আবাসনে উঠেছিল তৎকালীন পর্যটনমন্ত্রী ছিলেন গৌতম দেব।

এদিন সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে গৌতম দেব বলেন, “তার সঙ্গে আমার জ্ঞানত বা অজ্ঞানত কোনও কথা বা দেখা হয়নি। দলের কেউ জড়িত রয়েছে কিনা আমার কাছে কোন তথ্য নেই।”

সঙ্গীতশিল্পী সৌভিক মজুমদার জানান, ২০১৮ সালে পরিচয় হয় দেবাঞ্জনের সঙ্গে। মৈনাকে দেখা হয়েছিল। আমার সঙ্গে একটা অ্যালবাম নিয়ে আলোচনা হয়।

তিনি আরও জানান, পরে আমাকে কালিম্পংয়ে নিয়ে যায়। সেখানে চা-বাগান নিয়ে আলোচনা হয়। আমার কাছে চা বাগানের উন্নয়নে প্রস্তাব চান। আর একটা প্রস্তাব লিখিত আকারে মুখ্যমন্ত্রীকে পাঠাতে বলেন।

তিনি দাবি করেন, আমি কলকাতায় গিয়ে দিয়েও এসেছিলাম। আমাকে বলেছিল চা বাগান মনিটরিং কমিটির বড় পদে বসাবেন। সেইমতো আমি তাকেও প্রস্তাব দিই। এরপর হঠাৎ করে একদিন তিনি জানান তার বাবা শিলিগুড়িতে এসেছিলেন। কিন্তু ফেরার টাকা নেই।

তিনি আরও দাবি করেন, সেই সময় আমার কাছ থেকে তিন লক্ষ টাকা ধার নেন। কিছুদিন পর আমার সন্দেহ হয়। আমি কলকাতায় খোঁজখবর নিলে তার ভুয়ো আইএএস পরিচয় জানতে পারি। আমি তাকে জানালে আমাকে ও আমার ছেলেকে প্রাণে মারার হুমকি দেওয়া হয়। এরপর আমি আর তার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দিই।

এম এউ, ০৩ জুলাই

(function(d, s, id){
var js, fjs = d.getElementsByTagName(s)[0];
if (d.getElementById(id)) return;
js = d.createElement(s); js.id = id;
js.src = “https://connect.facebook.net/bn_BD/sdk.js#xfbml=1&version=v3.2”;
fjs.parentNode.insertBefore(js, fjs);
}(document, ‘script’, ‘facebook-jssdk’));

Newsvibe24 Source