আফগান পুরুষরা দাড়ি কাটা বন্ধ করেছেন – News Vibe24

আফগান পুরুষরা দাড়ি কাটা বন্ধ করেছেন - DesheBideshe


কাবুল, ০৪ সেপ্টেম্বর – দীর্ঘ দুই দশক পর আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখল করেছে তালেবান। রক্ষণশীল হিসেবে পরিচিত এই সংগঠনটি দ্বিতীয় দফায় ক্ষমতা দখলের পর আফগান পুরুষরা দাড়ি কাটা বন্ধ করেছেন। নারীরাও রঙিন স্কার্ফের বদলে কালো রং বেছে নিচ্ছেন, বাইরে বের হওয়ার আগে মেপে নিচ্ছেন নিজেদের পোশাকের দৈর্ঘ্য। বিবিসি এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানিয়েছে।

রক্ষণশীল এই সংগঠনটি ক্ষমতা দখলের পর আফগান নাগরিকরা দেশ ছেড়ে পালতে মরিয়া হয়ে উঠেছিল। তবে আফগানিস্তান থেকে সব মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের পর তালেবানের অধীনেই জীবনযাপনে অভ্যস্ত হওয়ার চেষ্টা করছে সাধারণ নাগরিকরা।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তালেবান দ্বিতীয় দফায় ক্ষমতা দখলের পর কাবুলের দৃশ্যমান পরিবর্তন চোখে পড়ছে না। কাবুলের রাস্তায় চিরচেনা যানজট আগের মতোই আছে। ঠেলাগাড়িতে বিক্রি হচ্ছে আফগান সবুজ আঙুর আর গাঢ় বেগুনি বরই। পথশিশুরাও স্বভাবসুলভ চিৎকার করছে।

দেখতে সব আগের মতো মনে হলেও আসলে তা অন্যরকম বলে বিবিসি ওই প্রতিবেদনে জানিয়েছে। তালেবান নিয়ন্ত্রিত রাজধানীর রাস্তায় দেখা যাচ্ছে তাদের সদস্যদের।

অবশ্য আফগানিস্তান থেকে সব মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের পর এক তাৎক্ষণিক সংবাদ সম্মেলনে তালেবানের মুখপাত্র জাহিবুল্লাহ মুজাহিদ সংগঠনের সদস্যদের প্রতি জনগণের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করার আহ্বান জানান।

৯০ দশকে প্রথম দফার শাসনামলে সাধারণ জনগণের ওপর কঠোর নিষিনিষেধ আরোপ করেছিল তালেবান। সে সময় চুরির জন্য হাত কেটে দেওয়া হতো, পাথর নিক্ষেপ করে মানুষ হত্যা করা হতো। এমনকি নারীদের শিক্ষাগ্রহণ ও চাকরির ক্ষেত্রেও ছিল নানা বিধিনিষেধ।

তবে এবার এসব রক্ষণশীল মনোভাব থেকে সরে এসেছে বলে দাবি করছে তালেবান।হিজাব পড়ে নারীরা পড়াশুনা ও চাকরি চালিয়ে যেতে পারবেন বলে সম্প্রতি এক মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেলকে তালেবানের মুখপাত্র জাহিবুল্লাহ মুজাহিদ জানিয়েছেন।

সূত্র: যুগান্তর
এম ইউ/০৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

(function(d, s, id){
var js, fjs = d.getElementsByTagName(s)[0];
if (d.getElementById(id)) return;
js = d.createElement(s); js.id = id;
js.src = “https://connect.facebook.net/bn_BD/sdk.js#xfbml=1&version=v3.2”;
fjs.parentNode.insertBefore(js, fjs);
}(document, ‘script’, ‘facebook-jssdk’));